হিলি স্থলবন্দরে মাত্র তিন দিনের ব্যবধানে কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি

গোলাম রব্বানী,হিলি প্রতিনিধি 

তিনদিনের ব্যবধানে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে কাঁচা মরিচের দাম বেড়েছে কেজিতে ৬০ টাকা ও পেঁয়াজের দাম বাড়ল ১০ টাকা।  কেজিপ্রতি ১৪০ টাকার মরিচ ২০০ টাকা এবং ২০ টাকার পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা দরে।ভারতে দাম বেশি এবং দেশে চাহিদার তুলনায় আমদানি কম হওয়ায় বেড়েছে কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজের দাম। এমনটিই বলছেন মরিচ ব্যবসায়ীরা।

সোমবার (৩১ আগস্ট) হিলি বন্দরের  বাজার ঘুরে এমনই চিত্র দেখা গেছে। এখানে তিনদিন আগে কাঁচা মরিচের পাইকারি দর ছিলো কেজি ১৪০ টাকা,  খুচরা বাজারে ছিলো ১৬০ টাকা।  তা বেড়ে এখন পাইকারি ১৮০ টাকা এবং খুচরা বাজারে ২০০ টাকায় উঠেছে।

অন্যদিকে পেঁয়াজের পাইকারি দর ছিলো কেজি ২০ টাকা, খুচরা বাজারে ছিলো ২২ টাকা।  আজ তা পাইকারি বাজারে ২৮ টাকা, খুচরা বাজারে ৩০ টাকা।

হিলি বাজারের খুচরা ব্যবসায়ী মিঠু মিয়া বলেন, লাগামহীন ঘোড়ার মতো বেড়ে চলছে কাঁচা মরিচ আর পেঁয়াজের দাম।  হঠাৎ দাম বাড়ায় ক্রেতাদের সাথে তর্কবিতর্ক করতে হচ্ছে।

বন্দরের কুদ্দুস  আলি নামের একজন মরিচ আর পেঁয়াজ ক্রেতা বলেন, দিন দিন বেড়েই চলছে কাঁচা মরিচের আর পেঁয়াজের দাম। বর্তমান প্রতিটি সবজির দাম অনেক বেশি।  তারপর আবার প্রতিদিন মরিচের দাম বাড়ছে।  এতো দাম বাড়লে আমাদের মতো সাধারণ মানুষ কীভাবে চলবো।

হিলি বাজারের পাইকারি কাঁচা মরিচ-পেঁয়াজ ব্যবসায়ী ফারুখ হোসেন বলেন, আমরা ১৬৫ টাকা দরে আমদানি কারকদের কাছ  থেকে কাঁচামরিচ কিনে ১৮০ টাকায় পাইকারি দিচ্ছি।  আর পেঁয়াজ ২৭ টাকা দরে কিনে ২৮ টাকা দরে পাইকারি দিচ্ছি।

তিনি বলেন, ভারতে কাঁচা মরিচের দাম বেশি এবং দেশে আমদানি কম হচ্ছে।  এ কারণে দেশি বাজারে কাঁচামরিচ আর পেঁয়াজের দাম বেড়েছে।

হিলি বন্দরের কাঁচা মরিচ ব্যবসায়ী শাহাবুল ইসলাম বলেন, কয়েকদিন ধরে আমদানি কম হচ্ছে।  তবে আজ ভারত থেকে কাঁচা মরিচের আমদানি হওয়ার কথা । এতে মরিচ আর পেঁয়াজের দাম কমতে পারে বলে তিনি মনে করেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares