‘সাধু’ সেজে ২ বছর ধরে মন্দিরে লুকিয়ে ধর্ষণ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

নাবালিকাকে ধর্ষণে অভিযুক্ত এক ব্যক্তিকে ভারতের উত্তরপ্রদেশ থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চান্দৌলি জেলার এক মন্দির থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার এড়াতে ‘সাধু’ সেজে ২ বছর ধরে ওই মন্দিরে লুকিয়ে ছিলেন তিনি।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, নাবালিকা ধর্ষণে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির নাম সত্যেন্দ্র শুক্ল (৫০)। মধ্যপ্রদেশের সভাপুর থানার অন্তর্গত একটি গ্রামের বাসিন্দা সে। ২০১৯ সালের মার্চ মাসে তার বিরুদ্ধে এক নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। তার পর থেকেই লাপাত্তা ছিল সে।

প্রায় ২ বছর ধরে তাকে খুঁজছে পুলিশ। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের চান্দৌলি জেলার মন্দির থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে মধ্যপ্রদেশ পুলিশ।

সভাপুর থানার পুলিশ জানিয়েছে, কালোজাদুর মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের করবে বলে সেই নাবালিকাকে ধর্ষণ করেছিল অভিযুক্ত। মামলা দায়ের হয়েছিল। কিন্তু অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা যায়নি।

সাভাপুর থানার ইনচার্জ এসপিএস চান্ডেল বলেন, অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে না পেরে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছিল। অনেক জায়গায় তল্লাশি চালিয়েও আমরা তার খোঁজ পাইনি। অবশেষে চান্দৌলি জেলার একটি মন্দির থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares