শ্যামনগরে ৫ ইউপিতে কৃষি বিষয়ক দক্ষতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ

শ্যামনগর(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা লিডার্স এর আয়োজনে “ব্রেড ফর দ্যা ওয়ার্ল্ড” এর আর্থিক সহযোগিতায় ২ দিন ব্যাপী কৃষি বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সক্ষমতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ লিডার্স এর প্রধান কার্যালয়ে ১৮ ও ১৯ জুন ২০২৩ তারিখ আয়োজন করা হয়। উক্ত প্রশিক্ষণে ৫টি ইউনিয়নের (গাবুরা, দক্ষিণ বেদকাশী, মুন্সিগঞ্জ, কাশিমাড়ী, ঈশ্বরীপুর) ৩০ জন কৃষি বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সদস্য অংশগ্রহন করেন। দুই দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৭নং মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অসীম কুমার মৃধা, সভাপত্বি করেন লিডার্স এর নির্বাহী পরিচালক মোহন কুমার মন্ডল। উক্ত প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষক হিসেবে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন উপজেলা কৃষি অফিসার মোহাম্মদ নাজমুল হুদা, উপসহকারী কৃষি অফিসার জামাল হোসেন এবং নলেজ এ্যান্ড রিসার্স ম্যানেজার কৌশিক রায়। আরো উপস্থিত ছিলেন প্রোগ্রাম ম্যানেজার আলীম আল রাজী, মনিটরিং অফিসার মনিরুজ্জামান মনি ও লিডার্সের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ।

প্রশিক্ষণে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব, অভিযোজন ধারনা ও প্রযুক্তিসমুহ, জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত স্থানীয় সমস্যা চিহ্নিতকরণ, কৃষিখাতে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাব, ইউনিয়নে উপকারভোগীদের সহিত লিডার্সের কৃষি বিষয়ক কার্যক্রম, কৃষি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ ও অন্যান্য অর্থনৈতিক উন্নয়নমূলক কাজ বিষয়ক স্থায়ী কমিটির কার্যাবলী, কমিটির সহায়তার ক্ষেত্রসমুহ চিহ্নিতকরন ও গুরুত্ব অনুযায়ী ক্রমবিন্যাস, কৃষি বিষয়ক বিভিন্ন সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের সাথে লিংকেজ স্থাপন ও সমন্বয় সাধন, লবণসহনশীল ধান ও সবজির জাত সম্পর্কে ধারনা প্রদান ও চাষের গুরুত্ব, জৈব বালাইনাশক ও জৈব সারের গুরুত্ব, কৃষিতে সাধারন রোগ—বালাই সম্পর্কে ধারনা প্রদান, আগাছা দমনের প্রয়োজনীয়তা এবং জলবায়ু অভিযোজিত কৃষিকে শক্তিশালী করার জন্য পরিকল্পনা প্রনয়ন করা হয়। প্রশিক্ষণে কৃষি বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সদস্যগণ আশা প্রকাশ করেন তারা অভিযোজিত কৃষিকে মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে সর্বাত্মক ভূমিকা পালন করবেন। এলাকার সাধারণ কৃষকদের যে কোন প্রকার সহযোগীতা প্রদানে তারা বিভিন্ন সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের সাথে লিংকেজ স্থাপন ও সমন্বয় সাধন করার প্রত্বয় ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন “জলবায়ু পরিবর্তনের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হওয়ায় লবণাক্ততার অনুপ্রবেশ, অনিয়মিত বৃষ্টিপাত, অতি বৃষ্টিপাত, জলাবদ্ধতা এবং সেচের জন্য পানির অভাবে কৃষি উৎপাদন হুমকির সম্মুখীন হচ্ছে। ফলে কৃষিকে বাঁচিয়ে রাখতে হলে প্রয়োজন সমন্বিত উদ্যোগ”। প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারীগণ আশা প্রকাশ করেন লিডার্সের এই ধরনের কার্যক্রম ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Shares
Verified by MonsterInsights