শচীন-সৌরভকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে দেননি রাহুল দ্রাবিড়!

স্পোর্টস ডেস্ক

২০০৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় হয়েছিল প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। যাতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল মহেন্দ্র সিংহ ধোনির ভারত। সেই দলে ছিলেন না সচিন তেন্ডুলকর, রাহুল দ্রাবিড়, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের মতো তারকারা। কেন তাঁরা খেলেননি বিশ্বকাপে, সেটাই ফাঁস করলেন সেই সময়ের জাতীয় কোচ লালচাঁদ রাজপুত।

এক ওয়েবসাইটের ফেসবুক পেজ-এ রাজপুত বলেছেন, “রাহুল দ্রাবিড়ই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে দেয়নি সচিন-সৌরভকে। ইংল্যান্ড সফরে দ্রাবিড় ছিল ক্যাপ্টেন। ভারতীয় দলের কয়েক জন ক্রিকেটার সোজা ইংল্যান্ড থেকে জোহানেসবার্গ উড়ে গিয়েছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য। তরুণদের সুযোগ দেওয়া হোক, এমন একটা মনোভাব কাজ করেছিল ওদের মধ্যে। সেটাই বলেছিল ওরা। কিন্তু, ধোনির দল বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর ওদের নিশ্চয়ই আফশোস হয়েছিল। কারণ, সচিন বরাবর আমাকে বলেছিল যে, এত বছর ধরে খেলছি, কিন্তু বিশ্বকাপ কখনও জিততে পারলাম না!”

সচিনের সেই আফশোস অবশ্য মিটেছিল ২০১১ সালে। যখন দেশের মাঠে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ধোনির দল। তবে রাহুল দ্রাবিড় ও সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় কখনও বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য হতে পারেননি। দ্রাবিড় শেষ ওয়ানডে খেলেছিলেন ২০১১ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর। কিন্তু বিশ্বকাপের স্কোয়াডে তিনি ছিলেন না। কার্যত, এক দিনের দলের নকশা থেকে অনেক আগেই বাইরে চলে গিয়েছিলেন তিনি। ২০১২ সালে তিনি টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানান। আর ২০০৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন সৌরভ।

আনন্দবাজার পত্রিকা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares