লেবাননের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করলো সৌদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসন সম্পর্কে লেবাননের তথ্যমন্ত্রী জর্জ কোরদাহির এক মন্তব্যের জের ধরে রিয়াদে নিযুক্ত লেবাননের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করেছে সৌদি সরকার। রিয়াদ বলছে, লেবাননের তথ্যমন্ত্রীর মন্তব্য ছিল অত্যন্ত ‘আক্রমণাত্মক’।

সৌদি আরবের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গতকাল (শুক্রবার) এক বিবৃতিতে বলেছে, লেবাননের রাষ্ট্রদূতকে সৌদি আরব ছাড়ার জন্য ৪৮ ঘণ্টা সময় দেয়া হয়েছে এবং বৈরুতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূতকে পরামর্শ করার জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, লেবানন থেকে যেকোনো ধরনের পণ্য আমদানির ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

সৌদি মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়, লেবানন কর্তৃপক্ষের ভুল পদক্ষেপের কারণে রিয়াদ ও বৈরুতের মধ্যে সম্পর্কের যে অবনতি হয়েছে তার জন্য সৌদি সরকার দুঃখিত। বিবৃতিতে দাবি করা হয়, দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরব লেবাননের সঙ্গে সুসম্পর্ক চাইলেও লেবানন কর্তৃপক্ষ বিষয়টিকে উপেক্ষা করার কারণে এই অবস্থা তৈরি হয়েছে।

লেবানন থেকে সৌদি আরবে যেসব মাদক চোরাচালান হয়ে আসছে তা বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে বৈরুত কর্তৃপক্ষ ব্যর্থ হয়েছে বলেও সৌদি আরব অভিযোগ করেছে। পাশাপাশি লেবাননে সৌদি নাগরিকদের ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে রিয়াদ সরকার।

কাতারের আল-জাজিরা টেলিভিশন চ্যানেলের সঙ্গে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে লেবাননের তথ্যমন্ত্রী জর্জ কোরদাহি বলেছেন, ইয়েমেনে সৌদি আরবের আগ্রাসন ব্যর্থ হয়েছে এবং এখন ইয়েমেন যুদ্ধ বন্ধ করার সময় হয়েছে। ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলনের পক্ষ নিয়ে তিনি আরো বলেছেন, বাইরের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে নিজেদেরকে রক্ষা করার চেষ্টা করছে আনসারুল্লাহ আন্দোলন। লেবাননের তথ্যমন্ত্রী আরো বলেছেন, সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ইয়েমেনের গ্রামাঞ্চল, বিয়ে বাড়ি এমনকি দাফন অনুষ্ঠানে বোমা হামলা চালাচ্ছে।

লেবাননের তথ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়ার আগে গত ৫ আগস্ট কোরদাহি এই সাক্ষাৎকার দিয়েছেন এবং গত সোমবার তা সম্প্রচার করা হয়। তার এ বক্তব্যের জের ধরে সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহারাইন এবং কুয়েতে নিযুক্ত লেবাননের রাষ্ট্রদূতদেরকেও তলব করে প্রতিবাদ জানানো হয়।

পার্সটুডে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares