রামুতে বনবিভাগের কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে অবৈধ করাত কল বসিয়ে পাহাড়ি গাছ চেরায়

রামু প্রতিনিধি

কক্সবাজারের রামুর রাজারকুল পালপাড়ায় আবদুল মজিদের মালিকানা দিন করাত টি সম্প্রীতি কক্সবাজার দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা শীল গালা করে দিলেও স্থানীয় বনবিভাগের কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে অবৈধ করাত কল টিতে রাত দিন সামাজিক বনায়ন ও পাহাড়ি গাছ চেরায় করা হচ্ছে।

সরকার গত ২৭ মে ২০১২ ইং সালে করাত-কল( লাইসেন্স) বিধিমালা একটা প্রজ্ঞাপন জারি করে৷ এতে ধারা উপধারা(১) বলা হয় কোন ব্যক্তি লাইসেন্স ব্যতীত কোন করাত- কল স্থাপন বা পরিচালনা করিতে পারিবেনা।

কিন্তু প্রশাসন ও বনবিভাগের লোকজনের রহস্যজনক কারনে কেন উচ্ছেদ হচ্ছে না পালপাড়া এলাকার এই অবৈধ করাতকলটি প্রশ্ন এলাকাবাসীর? করোনা ভাইরাসের কারনে সারাদেশের মত রামুতে ও সব করাত কল বন্ধ রাখার জন্য উপজেলা প্রশাসন নির্দেশ দিলেও তা মানছে না কেছু অসাধু ব্যবসায়ী। দিন রাত অবৈধ ভাবে পালাপাড়া এলাকায় জৈনেক আবদুল মজিদের মালিকানাধীন করাত কল টিতে চেরায় করাহচ্ছে পাহাড়ি ও সামাজিক বনায়নের বিভিন্ন প্রজাতির গাছ, এতে রাজারকুল,ও তুলাবাগান রেঞ্জের অধীনে শত একর সামাজিক বনায়ন উজাড় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে,সরকার হারাবে কোটি টাকার রাজস্ব, এই নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন এলাকার সচেতন মহল।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সচেতন মহলের কয়েকজন জনান সারাবিশ্বব্যাপী এবং বাংলাদেশেও করোনার আতংকে আছে রামুর মানুষ, কিন্তু আমাদের রামু উপজেলা এবং থানা প্রশাসন ও সেনাবাহিনী করোনার কারনে মানুষেরকে সচেতন করতে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছে,এবং খাদ্য সহায়তা দিয়ে ঘরে থাকার জন্য নির্দেশনা প্রদান করে যাচ্ছে।অথচ আবদুল মজিদ প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে কোন শক্তির ইশারায় অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে করাত গুলো চালানো হচ্ছে জানিনা। অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে এই করাত কল টি উচ্ছেদ করে সমাজিক বনায়ন রক্ষা করার জন্য বনবিভাগ ও উপজেলা প্রশাসন হস্তক্ষেপ কামনা এলাকাবাসী।

এব্যাপারে রাজারকুল রেঞ্জ কর্মকর্তা নাজমুল হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান আমি আগামীকাল যাব তারপর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

তুলাবাগান রেঞ্জ কর্মকর্তা সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান এই টা একবার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল,

রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares