রামুতে দুই ভূয়া আমর্ড পুলিশকে গণপিটুনি

রামু প্রতিনিধি,কক্সবাজার:
কক্সবাজারের রামু রাজারকুল ইউনিয়নের পশ্চিম হালদারকুল ষ্টেশন থেকে দুই ভূয়া আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন কে আটক করেছে স্থানীয় জনগণ। 

আটককৃতরা হলেন,রাজারকুল ইউনিয়নের হালদারকুল এলাকার আবু বক্কর ছিদ্দিক (লুতু মিয়ার) পুত্র মোঃ নুরুল আবছার আকাশ(২০) ও অপরজন একই  ইউনিয়নের চৌকিদার পাড়া এলাকার নবী হোসেনের পুত্র নুরুল আলম নুরু (১৯)।শনিবার (১১এপ্রিল)আনুমানিক রাত সাড়ে ১০ টার দিকে রামু রাজারকুল ইউনিয়নের হালদারকুল ষ্টেশনের আবু তাহেরের দোকানের সামনে দুই জন ব্যক্তি পুলিশ পরিচয়ে সাধারণ মানুষ কে মারধর শুরু করেন,সাধারণ মানুষ পুলিশের মারধরের ভয়ে তড়িঘড়ি করে স্টেশন থেকে পালাতে শুরু করেন।এদের মধ্যে একজনের গায়ে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের পোশাক ও আরেকজন ছিল সিভিল পোশাকে। সাধারণ মানুষদের মারধরের একপর্যায়ে কিছু লোক তাদের চিনতে পারে যে আসলে তারা পুলিশ সদস্য না,তারা দুই জনই একই এলাকার  ছেলে।তখন জনতা এগিয়ে এসে তাদের দুই জনকে আটক করেন।

আটকের পর স্হানীয় জনগণ রামু থানা পুলিশ কে বিষয়টি অবগত করলে পুলিশ ঘটনা স্থল থেকে তাদের দুইজনকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। 

এই বিষয়ে শফিক নামক স্হানীয় একজন বলেন,সাড়া বিশ্বের মত বাংলাদেশেও মহামারি করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে,তাই দেশে করোনা প্রতিরোধে কঠোর পদক্ষেপ হিসেবে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে করোনা মোকেবেলায় জেলা সহ উপজেলা প্রশাসন মাঠে নেমেছে।সেনাবাহিনী,পুলিশ ও নৌবাহিনী প্রতিনিয়ত প্রতিটি এলাকায় টহল জোরদার রেখেছে,বাজার মনিটরিং থেকে শুরু করে জনসমাগম বন্ধে,মানুষকে ঘর মুখো করতে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে।যার কারণে ঘরের বাইরে থাকা সাধারণ মানুষ প্রশাসনের ভয়ে আতংকে রয়েছে।তার সুযোগ কাজে লাগিয়ে রাজারকুল ইউনিয়নের নবী হোসেনের ছেলে ও লুতু মিয়ার ছেলে আমর্ড পুলিশের পোশাক পড়ে মানুষকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে,হালদারকুল বাজারকে একদম জনশূন্য করে দোকানপাট চুরি করার পায়তারা চালাচ্ছে,এমন সময় সাধারণ মানুষ তাদের দুই জনকে  আটক করেন।
রামু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)আবুল খায়ের জানান-স্থানীয়রা তাদেরকে আটক করে গণপিটুনি দেওয়ার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দু’জনকে  উদ্ধার করি।এসময় তাদের একজনের গায়ে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের পোশাক ও আরেকজন সিভিলে ছিল।এই বিষয়ে দুই জনের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares