রাজশাহীতে করোনা চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতের দাবি মানববন্ধন ও সমাবেশ

রাজশাহী প্রতিনিধি:
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা বৃদ্ধি ও চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে সামাজিক সংগঠন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ। শনিবার বেলা ১০টা থেকে ঘন্টাব্যাপী নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।
মানববন্ধন চলাকালীন বক্তারা বলেন, দেশে মহামারি করোনা পরিস্থিতি চলছে। মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে। চিকিৎসার জন্য প্রতিনিয়ত হাসপাতালে ছুটছেন কিন্তু কাঙ্খিত সেবা পাওয়া যাচ্ছে না। সাধারণ মানুষ তাদের নমুনা টেস্ট করাতে পারছেন না। করোনাকালের অজুহাতে চিকিৎসকরা সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছে না। ফলে রাজশাহীতে ক্রমাগতভাবে করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

গত ঈদের আগ পর্যন্ত রাজশাহী নগর করোনামুক্ত হলেও এখন চিকিৎসকদের অবহেলার কারনে আশঙ্কাজনকহারে করোনা রোগী বাড়ছে। তারা কোনো চিকিৎসা পাচ্ছে না। এছাড়া রাজশাহীতে করোনা রোগীদের জন্য ডেডিকেটেট হাসপাতাল হিসেবে রাজশাহীর খ্রীষ্টান মিশন হাসপাতালে ব্যবস্থা করা হলেও সেখানকার ভুতুড়ে পরিবেশ ও চিকিৎসকদের অবহেলার কারনে রোগীরা সুস্থ্য হওয়ার পরিবর্তে মৃত্যুর দিখে ধাবিত হচ্ছে।

সমাবেশ থেকে রাজশাহীতে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ হয়ে পড়ে থাকা সদর হাসপাতালেও চিকিৎসাসেবা চালুর জোর দাবি জানানো হয়। বক্তারা বলেন, চিকিৎসকরা করোনাকালে সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি পেলেও চিকিৎসা দিতে নানা গড়িমশি করছেন। অনেক সিনিয়র চিকিৎসক রোগীর কাছে পর্যন্ত পৌছেন না। এ কারণে সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে চিকিৎসকদের প্রতি সাধারণ মানুষের বিশ্বাস ও আস্থা হারিয়ে গেছে। সমাবেশ থেকে চিকিৎসকদের প্রতি রোগী বান্ধব হয়ে করোনা রোগীদের পাশে দাড়ানোর আহবান জানানো হয়। এছাড়া রামেক হাসপাতালের আইসিইউ ফাঁকা বেডে করোনা রোগীদের রেখে চিকিৎসার দাবি জানানো হয়।

রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি মো. লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মসূচিতে রাজশাহীর বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। এসময় অন্যদের মধ্যে রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান, সিনিয়র সহসভাপতি এ্যাডভোকেট হামিদুল হক, সাংগাঠনিক সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, রাজশাহী চেম্বারের সাবেক পরিচালক হারুনার রশিদ, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি নুরুল ইসলাম মতিন, আইনজীবী সমিতির নেতা এন্তাজুল হক বাবু, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন রাজশাহীর নেত্রী সেলিনা বেগম, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রাজশাহীর সাধারণ সম্পাদক অঞ্জনা সরকার, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হক, উন্নয়ন কর্মী সুব্রত কুমার পাল, মিনহাজ উদ্দিন মিনু, রাজশাহী ওয়েবের সভাপতি আঞ্জুমান আরা লিপি, মুক্তিযোদ্ধ বজলার রহমান, জেলা লোকমোর্চার সহসভাপতি আকলিমা খাতুন লিমা, মাওলানা মাকসুদ উল্লাহ, কেএম জোবায়েদ হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares