রাজশাহীতে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে ত্রাণ পেল ১৬০ পরিবার

ফলোআপ

আপেল মাহমুদ, রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহীর পবার মুশরইলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৬০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে।সোমবার এই তাণ বিতরণ করেন পবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

পবা উপজেলার পারিলা ইউনিয়নের মুশরইল নতুনপাড়া, বাচ্চুর মোড়, পশ্চিম পাড়া, বাগানপাড়া এলাকায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ১৬০ পরিবারের মাঝে ১০ কেজি করে চাল বিতরন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন, সহকারি কমিশনার ভুমি আবুল হায়াত, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম, পারিলা ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল বারি ভুলু প্রমুখ।

ইউএনও বলেন, পরবর্তীতে এখানে আরো ত্রাণসামগ্রী দেয়া হবে। এছাড়াও সেখানকার মানুষজনকে ফোন নম্বর দেয়া হয়েছে। কারো সমস্যা হলে ফান করে জানালে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য গত রোববার মুশরইল নতুনপাড়া এলাকার লোকজন ত্রাণের দাবীতে বিক্ষোভ করে। ত্রাণের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন এলাকাবাসী। রাজশাহী নগরীর অদূরে পবার মুশরইল নতুন পাড়া এলাকার কয়েকশো বাসিন্দা গতকাল রোববার বেলা ১১ টার দিকে এই বিক্ষোভ শুরু করেন।

তাদের দাবি সরকার ১০ কেজি করে চাল সাধারণ মানুষের মধ্যে বিনামূল্যে বিতরণ করলেও এখন পর্যন্ত এলাকাবাসীর মাঝে সেটি বিতরণ করা হয়নি। ফলে না খেয়ে না দিন পার করতে হচ্ছে অসহায় এই মানুষগুলোকে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, মুশরইল নতুনপাড়া গ্রামে প্রায় সাড়ে তিনশ হতদরিদ্র মানুষের বসবাস। এরমধ্যে ১৮০ জনের আইডি কার্ড দেখে তালিকা করেন স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল কাশেম। কিন্তু তারপরেও তাদের কোনো রকম সহযোগিতা করা হয়নি।
স্থানীয় আসাদুলসহ আরও অনেকে অভিযোগ করেন, এই এলাকাটি পারিলা ইউনিয়নের মধ্যে। ওই ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম ভুলু এনিয়ে কোনো রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। উল্টো স্থানীয় ইউপি সদস্য ও চেয়ারম্যানের কাছে ত্রাণের দাবিতে এলাকাবাসী গেলে, তাদের সাথে খারাপ আচরণ করে তাড়িয়ে দেয়া হয়। এ নিয়ে ক্ষোভে রাগে রবিবার সকাল থেকে বিক্ষোভ শুরু করেন এলাকাবাসী।

এতে করে পরিবার-পরিজন নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন অসহায় মানুষগুলো। যারা দিন এনে দিন খেয়ে এতদিন জীবন যাপন করছিলেন তারা পড়েছেন সবচেয়ে বেশি বিপাকে।

এদিকে খবর পেয়ে রাজশাহী নগরীর চন্দ্রিমা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে এলাকাবাসীকে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার অনুরোধ জানিয়ে মাইকিং শুরু করেন। এরপর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে শুরু করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares