যশোরে প্রতারণার অভিযোগে মেয়ে-জামাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা

যশোর প্রতিনিধি:


যশোরে প্রতারণার অভিযোগে মেয়ে ও জামাইকে আসামি করে আদালতে মামলা করেছেন এক হতভাগ্য মা। যশোর সদরের কামালপুর গ্রামের বাবুল হোসেনের স্ত্রী মমতাজ সুলতানা রাণী বাদী হয়ে এ মামলাটি করেন। আসামিরা হলেন, কামালপুর শাহাপাড়ার মৃত ইসমাইলের ছেলে রবিউল ও বাদীর মেয়ে রবিউলের স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস নিশু। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক গৌতম মল্লিক অভিযোগটি তদন্ত করে ডিবি পুলিশকে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলার সূত্রে জানা যায়, মমতাজ সুলতানা রাণী একজন গৃহিনী। তার মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস নিশু ঝিনাইদহ কেসি কলেজের অনার্স ২য় বর্ষের ছাত্রী। মমতাজ সুলতানা মণিরামপুরের কুয়াদা বাজরের সমাধান এনজিওর সদস্য হিসেবে টাকা জমা রাখতেন। মমতাজ তার স্বামীর জমি বিক্রি করা পাঁচ লাখ টাকা ওই এনজিওতে জমা রাখেন। করোনায় এনজিও কৃর্তপক্ষ তাকে সংবাদ দিয়ে জমা রাখা টাকা তুলে নিয়ে যেতে বলেন। চলতি বছরের ২১ জুন মমতাজ তার মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌসকে সাথে নিয়ে এনজিও থেকে পাঁচ লাখ ৪০ হাজার টাকা উত্তোলন করেন। এ টাকা তিনি ইসলামী ব্যাংকে হিসাব খুলে জমা রাখতে চাইলে মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস তার হিসাবে টাকা জমা রাখার পরামর্শ দেয়। এতে রাজি হয়ে মমতাজ আরও ১০ হাজার টাকা দিয়ে মোট সাড়ে ৫ লাখ টাকা মেয়ের ব্যাংক হিসাবে জমা রাখেন।
এরপর গত ৮ সেপ্টেম্বর মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস কলেজের যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। পরে জানতে পারেন মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ও তার স্বামী রবিউল প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে ষড়যন্ত্র করে তার সব টাকা ব্যাংক থেকে তুলে আত্মসাত করেছে। এ টাকা আদায়ে ব্যর্থ হয়ে তিনি আদালতে মেয়ে ও জামাইয়ের বিরুদ্ধে এ মামলা করেছেন।
কেএ/জু আ/আবেদ হোসেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares