যশোরের চৌগাছায় জবি শিক্ষার্থীর পরিবারের উপর হামলা

জবি প্রতিনিধি

যশোরের চৌগাছায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) এক শিক্ষার্থীর পরিবারের উপর দুই বার হামলার ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া ওই শিক্ষার্থীর পরিবারকে বাড়ি ছাড়া করার হুমকি প্রদানে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে সবাই।
এ ঘটনার জেরে থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

জানা যায়, সোমবার (২৪ জুন) চৌগাছা থানার স্বরুপদাহ ইউনিয়নের সাঞ্চাডাঙ্গা গ্রামে আব্দুর রশিদ (ডাক নাম ছোট খোকা) নামে ওই শিক্ষার্থীর বাবার নতুন রোপন করা ধান ক্ষেতে একই গ্রামের আমিনুর রহমানের (৪০) গরুর লাগে।

এসময় মাঠে গরু খাওয়াতে আসা আমিনুরের ছেলে রিয়াদকে (১৭) ক্ষেতে গরু করার কথা বললে তর্ক বিতর্ক হয়। এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে রশিদকে মারতে থাকে রিয়াদ। পরে রশিদ আহাজারি জানালে পাশের ক্ষেতে কাজ করা কয়েকজন তাকে আহত অবস্থায় ঠেকায়।

এসময় পাশের ক্ষেতে কাজ করা আবু কালাম ও সবুজ বলেন, রিয়াদের গরু ধান ক্ষেতে পাশে ছিল, অন্য কোন গরু ছিল না। ক্ষেতে গরু লাগার কথা বললে উভয় পক্ষের তর্কের বাধে। এক পর্যায়ে রিয়াদ রশিদকে মারতে থাকে। পরে আহাজারি শুনে আমি ঠেকাই।
এদিকে রিয়াদের বাবা আমিনুরকে গ্রামে সালিশি আসতে বললে বলেন, আমি গ্রামের কোন মানুষের ধার ধারি নে। কে কি করতে পারে দেখে নিব।

রাতে গ্রামের সালিশিতে অভিযুক্ত হামলাকারীরা না আসলে লোকজন তাদের নিন্দা করে ঘটনা এখানেই শেষ হয়।

কিন্তু এদিকে ভোরবেলা মাঠে কাজে যাওয়ার সময় রশিদকে পুনরায় হামলা করে আমিনুর, ভাই শাহিনুর, ছেলে রিয়াদ ও ভাইপো সোহাগ। লাটি দিয়ে পিটাতে পিটাতে শাহিনুর বলে আমার তোর কে আছে দেখে নিব। এসময় উপস্থিত একই গ্রামের পেন্ট, লাল্টু, আলম মারের হাত থেকে তাকে উদ্ধার করে।
প্রত্যক্ষদর্শী পেন্টু বলেন, আমি দেখলাম রশিদকে মারছে। আমি ঠেকাতে গিয়েও লাঠির বাড়ি খেয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares