মান্দা কাঁশোপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সার কালোবাজারে বিক্রির সময় আটক দুই

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাজশাহী :
নওগাঁর মান্দায় ভুর্তুকির সার কালোবাজারে বিক্রির সময় দুইজনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।  রোববার বেলা ১২টার দিকে উপজেলার কাঁশোপাড়া ইউনিয়নের ছোটচকচম্পক দাখিল মাদরাসা মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনায় আটককৃতরা হলেন, উপজেলার কাঁশোপাড়া ইউনিয়নের আন্দারিয়াপাড়া গ্রামের মেহের আলী পিয়াদার ছেলে জুলহাজ ইসলাম ভোলা (৪০) ও নাপিতাপাড়া গ্রামের জয়েন উদ্দিন মৃধার ছেলে গোলাম মোস্তফা (৪১)।

স্থানীয়রা জানান, পাট অধিদপ্তরের ভুর্তুকির সার কৃষকদের মাঝে বিতরণ না করে কাঁশোপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে একটি ভ্যানে করে ভোলা ও গোলাম মোস্তফা কালোবাজারে বিক্রির জন্য ছোটচকচম্পক মাদরাসা মোড়ে নিয়ে যান। মোড়ের মুদি দোকানি মোকলেছার রহমানের নিকট দুই বস্তা ইউরিয়া ও দুই বস্তা এমওপি (পটাশ) সার বিক্রির সময় লোকজনের সন্দেহ হলে ভোলা ও গোলাম মোস্তফাকে আটক করা হয়। এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে ঘটনাস্থলে শতাধিক লোক উপস্থিত হয়ে আটককৃতদের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

ভুর্তুকির সার কালোবাজারে বিক্রির সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল হালিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। পরে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় আটককৃতদের পুলিশের হাতে তুলে দেন তিনি।

অভিযোগ উঠেছে কালোবাজারে সার বিক্রির সাথে চেয়ারম্যান জড়িত ।

তবে   কাঁশোপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি।

এ প্রসঙ্গে ইউএনও আব্দুল হালিম বলেন, পাটচাষিদের মাঝে বিতরণের জন্য ভুর্তুকির সারগুলো কাঁশোপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের হেফাজতে ছিল। সেখান থেকে সারগুলো কালোবাজারে বিক্রির জন্য কিভাবে নিয়ে যাওয়া হয়েছে এবিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে, এ বিষয়ে পাট অধিদপ্তরের সঙ্গে মোবাইলফোনে দফায় দফায় যোগাযোগ করা হলেও তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

মান্দা থানার পরিদর্শক তদন্ত তারেকুর রহমান সরকার জানান, ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares