বোরহানউদ্দিনে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম,আহত ৩

বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধিঃ

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার সাচড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শানু মীরের ছেলে রিয়াজ (২৬) কে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। এসময় তার বাবা আব্দুল আজিজ মীরের ছেলে শানু মীর (৫৫) ও তার মা মাহফুজা বেগম (৪৫) কে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। রবিবার সন্ধ্যায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে কথার কাটা-কাটি হয় তাদের প্রতিপক্ষদের সাথে। প্রতিপক্ষ আমির হোসেনের ছেলে শাহাজল মীর (৫০), নাসির মীর (৩৮), শাহাজলের ছেলে রিপন মীর (২৫), পারভেজ মীর (২৩), আব্দুল কাদেরের ছেলে শাফিজল মীর (৪০) ও আমীর হোসেনের ছেলে সেন্টু ওরফে আব্দুল হাই সহ আরো ৬ জন তাদেরকে কুপিয়ে জখম করেছে। স্থানীয় লোক আহত ছাত্রলীগ নেতা ও তার পরিবারকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করেন। আহত ছাত্রলীগ নেতা বলেন, আমাদের প্রতিপক্ষদের সাথে দীর্ঘ দিন যাবত আমাদের জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। আমাদের প্রতিপক্ষরা করোনা ভাইরাসের করনে ঢাকা থেকে সবাই দেশে আসেন। তারা সবাই পরিকল্পিতভাবে প্রথমে আমার বাবার সাথে কথার কাটা-কাটি করেন।

পরে আমরা সেখানে যাই , এসময় তারা হত্যার উদ্দেশ্য আমাকে দা দিয়ে কোপ দেয়, আমি গুরুতর জখম হই, আমার মা ও বাবা আমাকে উদ্ধারের চেষ্টা করলে তাদেরকেও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে আমাকে ও আমার পরিবারকে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায় তারা। এ ঘটনায় বোরহানউদ্দিন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন , আমি এ ঘটনার তিব্র নিন্দা জানাই।

ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় তদন্ত করে প্রকৃত অপরাধিকে আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি করছি। এব্যাপারে ছাত্রলীগ নেতার প্রতিপক্ষ শাহাজল মীর গংদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে কাউকে খুজে পাওয়া যায়নি। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে যানা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares