বিশ্বের ৯৯ শতাংশ মানুষ শ্বাস নেয় দূষিত বায়ুতে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বের প্রায় ৯৯ শতাংশ মানুষ অত্যন্ত দূষিত বায়ুতে শ্বাস নেয় বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সংস্থাটি সোমবার (০৪ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতি বছর দূষিত বায়ুর কারণে বিশ্বের লাখ লাখ মানুষ মারা যাচ্ছে বলেও প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, বিশ্বের ১১৭টি দেশের প্রায় ছয় হাজারের বেশি শহরের বায়ুর গুণমান পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। তা সত্ত্বেও এসব শহরে বসবাসকারী লোকজন দূষিত বায়ুতে শ্বাস নিচ্ছে।
বিশ্বের প্রত্যেক প্রান্তেই মানুষ বায়ু দূষণ মোকাবিলা করছে। তবে দরিদ্র দেশগুলোতে এই সমস্যা আরও প্রকট বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।
গত বছর ডব্লিউএইচও তার বায়ুমান নির্দেশক গাইডলাইন পরিবর্তনের পর জানায়, পিএম২.৫ নামে পরিচিত ছোট এবং বিপজ্জনক বায়ুকণার গড় বার্ষিক ঘনত্ব প্রতি ঘনমিটারে ৫ মাইক্রোগ্রামের বেশি হওয়া উচিত নয়। তবে এর চেয়েও কম ঘনত্ব উল্লেখযোগ্য স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণ হতে পারে।
বায়ুমান নিয়ে ডব্লিউএইচও-এর নির্দেশিকা মেনে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক সংস্থা এয়ার কোয়ালিটি (আইকিউ-এয়ার)। তারা বলছে, বায়ুদূষণ এখন বিশ্বের সবচেয়ে বড় পরিবেশগত স্বাস্থ্য হুমকি। প্রত্যেক বছর বিশ্বজুড়ে ৭০ লাখের বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটে বায়ু দূষণের কারণে।
মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক বিভিন্ন ধরনের রোগ তৈরি করে পিএম-২.৫। আইকিউএয়ার বায়ূতে পিএম-২.৫ এর যে উপস্থিতি পেয়েছে তা বৈশ্বিক স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক বলে সতর্ক করে দিয়েছে।
যদিও করোনাভাইরাস মহামারির লকডাউন এবং বিভিন্ন দেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার ফলে বায়ু মানের সাময়িক উন্নতি হয়েছে বলে গত বছর জানিয়েছিল জাতিসংঘ। তারপরও বায়ু দূষণ বড় ধরনের সমস্যা হিসেবে রয়ে গেছে।
ডব্লিউএইচওর পরিবেশ, জলবায়ু পরিবর্তন ও স্বাস্থ্যবিষয়ক পরিচালক মারিয়া নেইরা বলেছেন, বিশ্বের জনসংখ্যার প্রায় ১০০ ভাগই এখন এমন বায়ুতে শ্বাস নিচ্ছে যা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সুপারিশ করা বায়ুমানের চেয়েও খারাপ।
মারিয়া জানান, মহামারি থেকে বাঁচার পরও বায়ু দূষণের কারণে বছরে এখনও ৭০ লাখ প্রতিরোধযোগ্য মৃত্যু ঘটছে।
ডব্লিউএইচও প্রধান তেদ্রোস আধানম গেব্রিয়েসুস বায়ু দূষণ এবং জলবায়ু পরিবর্তনের স্বাস্থ্য চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার তাগিদ দিয়েছেন।
জীবাশ্ম জ্বালানির উপর নির্ভরশীলতা কমাতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
এদিকে গত মাসের শেষের দিকে ২০২১ সালে বিশ্বের ১১৭টি দেশ, অঞ্চল ও ভূখণ্ড এবং ৬ হাজার ৪৭৫টি শহরের বায়ুর মান নিয়ে বিশ্লেষণ করে আইকিউএয়ার বিশ্বের শীর্ষ বায়ু দূষণের দেশ এবং রাজধানীর তালিকা প্রকাশ করে। সেই তালিকায় বিশ্বের শীর্ষ দূষিত বায়ুর দেশ হিসেবে আবারও প্রথম অবস্থানে ছিল বাংলাদেশ। আর শহরগুলোর তালিকায় রাজধানী ঢাকার অবস্থান দ্বিতীয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares