বিরামপুরে চিকিৎসকসহ পরিবারের সকলেই করোনা পজিটিভ

গোলাম রব্বানী,দিনাজপুর প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলায়  এক চিকিৎসক পরিবারের ৫ জন সদস্য  করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছেন। প্রথমে ওই পরিবারের মধ্যে চিকিৎসক আক্রান্ত হন। এরপর তার  স্ত্রীর শরীরে করোনা শনাক্ত হলেও গতকাল রাতে   পরিবারের  অন্যসদস্যদের সবার করোনা পজেটিভ আসে।
এ নিয়ে উপজেলায় মোট করোনা রোগীর সংখ্যা ৫৩ জনে দাঁড়াল।তাঁদের মধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন ২৮ জন। দিন দিন করোনা সংক্রমণ বাড়লেও আশার খবর এখন পর্যন্ত উপজেলায় কোন করোনারোগী মৃত্যু হয়নি।
বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. সোলায়মান হোসেন মেহেদি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
আজ  মুঠোফোনে ডা. মো.সোলায়মান হোসেন মেহেদি বলেন,‘ দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা.সিরাজুল ইসলাম বিরামপুর পৌরশহরের ইসলাম পাড়া এলাকায় শশুর বাড়িতে পরিবারসহ থাকতেন।
গত ১৮ জুন তিনি প্রথম করোনাভাইরাসে শনাক্ত হন। এরপর ২১ জুন তার স্ত্রী করোনা শনাক্ত হলেও আজ তার ছেলে, মেয়ে, শশুর, শাশুড়িও তার শ্যালকসহ পরিবারের সবাই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। তারা সবাই নিজ বাড়িতে থেকে চিকিৎসা গ্রহরণ করছেন।
তিনি বলেন,‘এ পর্যন্ত উপজেলায় মোট করোনাভাইরাসে ৫৩ জন রোগী শনাক্ত হন।
তাঁদের মধ্যে ২৮ জন সুস্থ্য হয়ে নিজ বাড়িতে ফিরে গেছেন। তবে এই উপজেলায় করোনাশনাক্ত নিয়ে কোন ব্যক্তির মৃত্যু হয়নি।
বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকার বলেন,‘আক্রান্ত বাড়িটিকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।তারা নিজ বাড়ি থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করছেন।আমরা সার্বক্ষণিক তাঁদের তদারকি করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares