ফরিদপুরে পানির তোড়ে ভেঙে গেছে শহর রক্ষা বাঁধ

মোঃমাহফুজুর রহমান বিপ্লব,ফরিদপুর প্রতিনিধি:

বন্যার পানির চাপে ভেঙে গেছে ফরিদপুর সদর উপজেলার আলিয়াবাদ ইউনিয়নের শহররক্ষা বাঁধ।
গত ১২ ঘণ্টায় ফরিদপুরের পদ্মা নদীর পানি এখনো বিপৎসীমার ১০৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।
পানির চাপে ভেঙে গেছে সদর উপজেলার আলিয়াবাদ ইউনিয়নের শহর রক্ষা বাঁধ। বাঁধটি শহরতলির সাদিপুর ও বায়তুল আমান সংযোগ সড়ক হিসেবে ব্যবহৃত হতো।
এদিকে, ফাটল দেখা দেওয়ায় ফরিদপুর চরভদ্রাসন আঞ্চলিক সড়কে যান চলাচল সাময়িক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এই সড়কের বেশ কয়েকটি স্থান পদ্মার পানিতে ডুবে রয়েছে। ফাটলের স্থানে জিও ব্যাগ ফেলে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)।
ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার জানান, জেলার ৩০টি ইউনিয়নে ২২ হাজার পরিবার এখন পানিবন্দি হয়ে রয়েছে। তাদের জন্য এরই মধ্যে শুরু হয়েছে সরকারি খাদ্য সহায়তা বিতরণ।
এ ছাড়া জেলা সদর থেকে চরভদ্রাসন ও সদরপুর উপজেলার প্রধান সড়কটি চলাচলের উপযোগী করতে সড়ক বিভাগকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। যদিও ওই সড়কে বেশ কিছু স্থান পানিতে নিমজ্জিত।
ফরিদপুর পাউবো নির্বাহী প্রকৌশলী সুলতান মাহমুদ বলেন, ‘বর্তমানে পদ্মার পানি গোয়ালন্দ পয়েন্টে ৯ দশমিক ৬৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে, যা বিপৎসীমার ১০৪ সেন্টিমিটার ওপরে। এর ফলে প্রতিদিনই নতুন নতুন এলাকায় পানি প্রবেশ করেছে। তীব্র ভাঙন দেখা দিয়েছে মধুমতীর নদীর আলফাডাঙ্গা ও মধুখালী উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন।’
পাউবো প্রকৌশলী আরো বলেন, ‘শহর বন্যা প্রতিরক্ষা বাঁধের আলিয়াবাদে প্রায় ১০০ ফুটের মতো জায়গা ধসে গেছে। আজ রোববার সকাল ৭টার দিকে এ ধস দেখা দেয়। খবর পেয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। সেখানে বালুর বস্তাসহ কীভাবে বাঁধ রক্ষা করা যায়, সে ব্যবস্থা নেওয়া হবে দুপুর থেকে। আশা করছি বাঁধটি ঠিক করে ফেলতে পারব দ্রুত সময়ে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares