পাপলুর কাছ থেকে ৩০ কোটি টাকা ঘুষ নেয়া ব্যাক্তিকে খুঁজছে পুলিশ

নিউজ ডেস্ক

মানবপাচারের অভিযোগে গ্রেফতার লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শহীদুল ইসলাম পাপুল প্রায় ৩০ কোটি টাকা (১০ লাখ কুয়েতি দিনার) ঘুষ দিয়েছিল এক ব্যক্তিকে। কুয়েত পুলিশ তাকে খুঁজছে।

কুয়েতের প্রভাবশালী পত্রিকা আরব টাইমের সোমবার (২২ জুন) এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পলাতক দু’জন সন্দেভাজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। ওই দু’জনের একজনকে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশিদের চাকরি দেওয়ার কন্ট্রাক্ট পাওয়ার জন্য পাপুল ঘুষ হিসেবে প্রায় ৩০ কোটি টাকা দিয়েছিল।

এছাড়া পাপুলের অফিস থেকে কাগজপত্র জব্দ করতে কুয়েতের পাবলিক প্রসিকিউটর নির্দেশ দিয়েছেন। এখন পর্যন্ত এই ঘটনার তদন্তে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা, একজন ব্যবসায়ীসহ মোট সাত জন সন্দেহভাজনের তালিকায় রয়েছেন।

মানবপাচার, ভিসা বাণিজ্য ও অর্থপাচার সংক্রান্ত অপরাধে এ মাসের প্রথম সপ্তাহে পাপুল গ্রেফতার হয় কুয়েতে। দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদের পরে উঠে আসে কীভাবে সে মানুষকে প্রতারিত করে সম্পদের পাহাড় গড়েছে এবং এই কাজে তাকে কুয়েতের প্রভাবশালী সরকারি কর্মকর্তারা সহায়তা করেছে ঘুষ, উপহার ও অন্যান্য সুযোগের জন্য। পাপুলের এবং তার কোম্পানির প্রায় ৫০ লাখ কুয়েতি দিনার (প্রায় ১৪০ কোটি টাকা) ফ্রিজ করতে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংককে অনুরোধ করেছেন পাবলিক প্রসিকিউটর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares