নিয়মিত শরীর চর্চার উপকারিতা

সকালের ডাক ডেস্ক

আমরা বলি ব্যায়াম বা শরীরচর্চা করা উপকারী। কিন্তু কতটুকু উপকারী বা কেন উপকারী, তা অনেকেই জানি না, নিয়মিত শরীরচর্চা করলে নানা রকম দীর্ঘমেয়াদি রোগব্যাধি থেকে মুক্ত থাকা যায়, ওজন কমানো যায়, ভালো ঘুম হয় আর মানসিক প্রশান্তি আসে।

ব্যায়াম মনকে চাঙা করে: শরীরচর্চা করলে মস্তিষ্ক থেকে নানা রকম রাসায়নিক পদার্থ নির্গত হয়। এসব রাসায়নিক উপাদান চিত্ত প্রফুল্ল করে এবং শারীরিক ও মানসিক প্রশান্তির পাশাপাশি চেহারায় লাবণ্য ও ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়। নিয়মিত শরীরচর্চাকারীকে বিষণ্নতা কিংবা হতাশা সহজে গ্রাস করতে পারে না।

ফিটনেস মাপার ৩টি ব্যায়াম
নিয়মিত ব্যায়াম ক্রনিক রোগ প্রতিরোধ করে: আধুনিক জীবনে শারীরিক পরিশ্রমের পরিমাণ কমে গিয়েছে—হাঁটাহাঁটির প্রয়োজন হয় না বললেই চলে, আর আমাদের খাদ্যাভ্যাসও বদলে গিয়েছে। ফলে দিনে দিনে ক্রনিক রোগব্যাধি যেমন—হূদেরাগ, ডায়াবেটিস, উচ্চরক্তচাপ, অস্থিক্ষয়, ক্যানসার ইত্যাদি প্রকোপ বহুগুণে বেড়েছে। নিয়মিত ব্যায়াম ও শরীরচর্চা এগুলো প্রতিরোধ করে।

নিয়মিত ব্যায়ামে শরীরের ওজন কমে: যাদের ওজন বাড়তি, তাদের ব্যায়ামের কোনো বিকল্প নেই। শারীরিক পরিশ্রম করলে ক্যালরি খরচ হয়। এভাবে আমরা যতই শারীরিক পরিশ্রম করবো ততোই আমাদের ক্যালরি খরচ বাড়বে এবং শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

নিয়মিত ব্যায়াম কর্মস্পৃহা বাড়ায়: ব্যায়াম এবং শরীরচর্চার ফলে আমাদের শরীরের প্রতিটি কোষে অতিরিক্ত অক্সিজেন ও পুষ্টি সরবরাহ হয়। এর ফলে আমাদের হূদ্যন্ত্র এবং রক্তনালি সচল থাকে। এর ফলে সমস্ত শরীরে একটি সুস্থ প্রাণস্পন্দন ও উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়। এটা আমাদের কর্মস্পৃহা বাড়ায়।

অনুদানের ‘মুখোশ’ সিনেমায় পরীমনি

নিয়মিত ব্যায়াম সুনিদ্রা আনে: যাদের ঘুমের সমস্যা রয়েছে, তাদের জন্য ব্যায়াম অত্যন্ত উপকারী। ব্যায়াম অনিদ্রা দূর করে, অতি নিদ্রা হ্রাস করে। অবশ্য একেবারে ঘুমানোর আগে ব্যায়াম করা উচিত নয়। কারণ, ব্যায়ামের পরে মানসিক চাঙা ভাবের কারণে ঘুম আসা বিলম্বিত হতে পারে। সে ক্ষেত্রে প্রত্যুষে ব্যায়াম করা উপকারী।

নিয়মিত ব্যায়াম শারীরিক মিলনজীবনের জন্য উপকারী: যাদের শারীরিক মিলনজীবনে জড়তা কিংবা অনাগ্রহ এসেছে, ব্যায়াম তাদের জন্য অত্যন্ত উপকারী। নিয়মিত শরীরচর্চা করলে শারীরিক মিলনস্পৃহা বাড়ে, শারীরিক মিলনের স্থায়ীত্বকাল বৃদ্ধি পায় এবং দাম্পত্য জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনে।

এ আর এম সাইফুদ্দীন একরাম
বিভাগীয় প্রধান, মেডিসিন বিভাগ,
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ, রাজশাহী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares