চাল-চিনি-তেলসহ নিত্য পণ্যের দাম চড়া

ঢাকা : খোলা সয়াবিন তেলের দাম আবারও কেজিতে বেড়েছে ৪/৫ টাকা। সরকার বেধে দামে লোকসান হওয়ায় রাজধানীর পাইকারি বাজারে চিনি বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে অনেক দোকানি।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, খোলা সয়াবিন তেল দোকান ও মানভেদে বিক্রি হচ্ছে ১৪১/১৪২ টাকা কেজি। নিম্নমানের পামওয়েলের দামও বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১৩৫/১৩৬ টাকা কেজি। বাড়তি চিনির দামও।

বিক্রেতারা বলছেন, চিনি পাইকারিতে কেনাই আছে ৭৪/৭৫ টাকা কেজি। সরকার বেধে দেয়া দামে বিক্রি করলে গুণতে হয় লোকসান। তাই বিক্রিই বন্ধ রেখেছেন অনেকে। অনেকে আবার ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানার ভয়ে দোকানের মজুত ফাঁকা করছেন লোকসানে। বেড়েছে আমদানি করা মসুর ডাল। পাইকারিতেই বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা কেজি। এছাড়া আগে থেকেই চড়া আটা ও ময়দার দামও।

এদিকে, সপ্তাহ দুয়েক আগে সরকারের আমদানির অনুমতির খবরে চালের দাম কিছু কমলেও তা আবারও বেড়েছে।

বিক্রেতারা জানান, পাইকারিতেই চালের দাম বেড়েছে ২/৩ টাকা। বাজারে মিনিকেট ৫৮/৫৯, নাজিরশাইল মানভেদে ৬২/৬৭ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া পাইকারিতে বিআর আটাশ বিক্রি হচ্ছে ৪৮/৪৯ টাকা কেজি। আর মোটা স্বর্ণা চালের দাম ৪৬ টাকা।

এদিকে, বাজারে নিত্যপণ্যের এমন চড়া দামে ক্ষুদ্ধ ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়ই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares