চরফ্যাশনে শিক্ষার্থীদের বরাদ্দকৃত বিস্কুট চুরি

দুলারহাট প্রতিনিধি

ভোলার চরফ্যাসন উপজেলার দুলারহাট থানার পূর্ব চর নুরুল আমিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের উদাসীনতা ও দায়িত্ব অবহেলার কারণে স্কুলের ভিতর থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দকৃত বিস্কুট অহরহ চুরি হয়ে যাচ্ছে।

৫ এপ্রিল রবিবার রাতে স্থানীয় লোকজন কর্তৃক একজন বিস্কুট চোর হাতে-নাতে ধরা হলেও এখনো পর্যন্ত স্কুলটির প্রধান শিক্ষক এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় কোন কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। এমনকি এ ঘটনার দুই দিন অতিবাহিত হয়ে যাওয়ার পরেও চরফ্যাসন উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে বিষয়টি সম্পর্কে অবগত করেননি বলে প্রধান শিক্ষকের কাছ থেকে জানাযায়।

সরেজমিনে গিয়ে জানাযায়, স্কুলের প্রধান গেইট বন্ধ থাকলেও যে কেউ সহজে স্কুলের ভিতরে প্রবেশ করতে পারে। এমনকি স্কুলের জানালা খোলা এ অবস্থায় যে কেউ চাইলে সেখান থেকে বিস্কুট নিয়ে যেতে পারে।স্থানীয় ৩-৪ লোকজন জানান, স্কুল থেকে বিস্কুট চুরি হলে এ বিষয়টি স্কুলের প্রধান শিক্ষক এবং স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতিকে অবহিত করা হয়। বিস্কুট গুলো উদ্ধার করে সভাপতি মোঃ হানিফ মাতাব্বরের কাছে রাখা হয়। তারা বলছে স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করবে কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন মীমাংসা হয়নি।

পূর্ব চর নুরুল আমিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর হোসেন স্কুলের ভিতর থেকে বিস্কুট চুরির ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি সাংবাদিকদের জানান, আমি স্থানীয়ভাবে এ বিষয়টি মীমাংসা করবো,তাই এখনো পর্যন্ত উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে অবহিত করিনি।

এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসার তৃষিত কুমার চৌধুরী মুঠোফোনে জানান, আমাকে স্কুলের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর হোসেন মঙ্গলবার সন্ধ্যার পরে বিস্কুট চুরির বিষয়টি জানিয়েছে। যে ছেলেটি বিস্কুট চুরি করেছে তার বয়স ১২-১৩ বছর এবং স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করবে। তারপর কি হয়েছে এখনো পর্যন্ত জানায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares