ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে চরমাদ্রাজ ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসা বিধ্বস্ত

শরিফুল আলম সোয়েব,চরফ্যাশন প্রতিনিধি:

সুপার সাইক্লোন ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তান্ডবে ভোলা চরফ্যাশন উপজেলার ০৩ নং চরমাদ্রাজ ইউনিয়নে চরমাদ্রাজ ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসাটি বিধ্বস্ত হয়েছে।

বুধবার (২০মে) বিকালে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবের মাদ্রাসার টিনসেট ভবনটির এক-তৃতীংশ বিধ্বস্ত হয়েছে। মাদ্রাসাটি বিধ্বস্ত হওয়ায় প্রায় চার শতাধিক কোমল মতি শিক্ষার্থীর লেখাপড়ায় অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

করোনা দুর্যোগের মধ্যেই ভোলায় ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ঘড় বাড়ি বিধ্বস্ত হয়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে মানুষ। মেঘনা নদীতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় জেলার সাত উপজেলায় পানি বন্দি হয়ে পড়েছে প্রায় ৩০ গ্রামের বাসিন্দারা। পানিতে তলিয়ে গেছে ফসলের মাঠ ও মাছের ঘের।

টানা বৃষ্টি ও প্রচন্ড বাতাসে অসংখ্য গাছপালা উপড়ে পড়েছে।এতে বিভিন্ন স্থানের অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। তার ছিড়ে জেলার সবকটি উপজেলায় বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ রয়েছে।

মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্কও বিচ্ছিন্ন অবস্থায় আছে।বাংলার কলমের প্রতিনিধিকে মাদ্রাসাটির অধ্যক্ষ মাওঃ মোঃ নিজাম উদ্দিন হুমায়ুন সরমান বলেন আমাদের মাদ্রাসায় আট শতাধিক ছাত্র/ছাত্রী অধ্যায়নরত আছে। দুটি ভবনের একটি ভবনের প্রায় পুরোপুরি বিধস্ত তাতে প্রায় চার শতাধিক কোমল মতি শিক্ষার্থীর লেখাপড়ায় অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি মহোদয়ের একান্ত শুদৃষ্টি কামনা করছি। যাতে এই কমলমতি শিক্ষার্থীরা শিক্ষার সুযোগ পায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares