ক্রিকেটারদের আগষ্টে মাঠে ফেরাতে চায় বিসিবি

স্পোর্টস ডেস্ক
মহামারি করোনার আতঙ্কে স্থবির দেশের ক্রিকেট। তবে নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী সরকারের অনুমতি পেলেই আগস্টের মাঝামাঝি ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরাতে চায় বিসিবি। দীর্ঘদিন অনুশীলন থেকে দুরে থাকলেও, পেশাদার ক্রিকেটার হওয়ায় ফিটনেস আর স্কিল ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে মানসিকভাবে অনেকটাই এগিয়ে থাকবে তামিম-মুশফিকরা। 
এমনটাই মনে করেন সাবেক ক্রিকেটার হান্নান সরকার। আর ঘরের মাঠে অনুশীলনে ফিরতে পারলে ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাস আরো বেড়ে যাবে। বিশ্বাস সাবেক ক্রিকেটার মেহরাব হোসেন অপির।
করোনা ভাইরাসের প্রকোপে বন্ধ হয়ে আছে দেশের ক্রিকেট। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের কারনে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের একের পর এক সিরিজ বাতিল ও স্থগিত হচ্ছে।
পাকিস্তান,আয়ারল্যান্ড,ইংল্যান্ড,অস্ট্রেলিয়া,নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টাইগারদের সবগুলো সিরিজ স্থগিত। আর সর্বশেষ স্থগিত হয়েছে এশিয়া কাপ। সবমিলিয়ে কোভিড-১৯ এর প্রভাবে ৮টি টেস্ট, চারটি ওয়ানডে আর ৯টি টি-টোয়েন্টি খেলা হচ্ছে না বাংলাদেশের। টাইগারদের স্থগিত হওয়া সিরিজ গুলো কবে নাগাদ মাঠে গড়াবে তা জানা নেই কারও।
করোনার কঠিন সময়ের মাঝেও ফিটনেস ঠিক রাখতে নিজেদের সাধ্য অনুযায়ী ব্যস্ত সময় পার করছে ক্রিকেটাররা। যদিও মাঠে অনুশীলনে ফিরতে মরিয়া তামিম-মুশফিকরা। এদিকে, নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী সরকারের অনুমতি পেলেই আগস্টের মাঝামাঝি ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরাতে চায় বিসিবি। অনুশীলন শুরু হলে ফিটনেস ও স্কিল ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে মানসিকভাবে অনেকটাই এগিয়ে থাকবে ক্রিকেটাররা। এমনটাই মনে করেন সাবেক ক্রিকেটার হান্নান সরকার।
ইংল্যান্ড -ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ দিয়ে মাঠে ফিরেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। সামনে পাকিস্তান-ইংল্যান্ড সিরিজ। এ সিরিজ গুলো টাইগারদের অনুপ্রাণিত করার পাশাপাশি ঘরের মাঠে অনুশীলন ফিরতে পারলে ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাস আরো বেড়ে যাবে । বিশ্বাস সাবেক ক্রিকেটার মেহরাব হোসেন অপির।
করোনার ক্রান্তি কাটিয়ে আবারো মাঠে ফিরবে দেশের ক্রিকেট। এমনটাই প্রত্যাশা সাবেক এই দুই ক্রিকেটারের। সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares