এবার লকডাউন শরীয়তপুর জেলা

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

প্রাণঘাতি নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবেলায় শরীয়তপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।
শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক ও করোনা প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটির সভাপতি কাজী আবু তাহের স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তিতে বুধবার (১৫ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দিকেএ ঘোষণা দেয়া হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত লকডাউন থাকবে বলে উলে­খ করা হয়।
এ প্রসঙ্গে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঝুঁকি মোকাবেলার উদ্দেশ্যে শরীয়তপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। যা বুধবার (১৫এপ্রিল) সন্ধ্যা ৬টা থেকে কার্যকর হবে এবং পরবর্তী সিদ্ধান্ত না দেয়া পর্যন্ত বহাল থাকবে।

তিনি আরো বলেন, এসময় জেলায় জনসাধারণের প্রবেশ ও প্রস্থান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত জাতীয় ও আঞ্চলিক সড়ক-মহাসড়ক ও নৌ-পথে অন্য কোনো জেলা থেকে কেউ এ জেলায় প্রবেশ করতে কিংবা এ জেলা থেকে অন্য জেলায় যেতে পারবে না। জেলার অভ্যন্তরে যাতায়াতের ক্ষেত্রেও একই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।জেলা ও উপজেলার যেকোনো সীমানা দিয়ে যানবাহনের প্রবেশ ও প্রস্থান বন্ধ থাকবে।

সকল ধরনের গণপরিবহন ও জনসমাগম বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি পরিসেবা, চিকিৎসা সেবা, খাদ্যদ্রব্য সরবরাহ ও সংগ্রহ লকডাউনের আওতার বাইরে থাকবে। এসব আদেশ অমান্যকারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

লক্ষ্যনীয় বিষয় এই যে, শরীয়তপুরে সর্বমোট ৫০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪৬ জনের নেগেটিভ চারজনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এদিকে গত ৪ এপ্রিল সকাল ১০টায় শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ৯০ বছরের এক বৃদ্ধ প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় মারা যান। এ অবস্থায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঝুঁকি মোকাবেলায় শরীয়তপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares