আরব রাষ্ট্রগুলো বিশ্বাসঘাতক: এরদোগান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

করোনার এই মহামারীতেও আরব দেশ গুলো নীরব ভূমিকা পালন করছে। ফিলিস্তিন কিংবা ইরাকের পাশে না দাঁড়িয়ে আরব দেশগুলো তাদেরকে ধ্বংস করার খেলায় মেতেছে।

সম্প্রতি মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথিত একপেশে শান্তি প্রস্তাবের পক্ষে যেসব আরব দেশ মতামত দিয়েছে সেসব রাষ্ট্রকে বিশ্বাসঘাত’ক বলে আখ্যায়িত করলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান।

তুরস্কের পার্লামেন্টে দলীয় এমপিদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন। এরদোগান বলেন, শতাব্দীর সেরা চুক্তির মাধ্যমে আমেরিকার প্রধান লক্ষ্য পূন্যময়ী নগরী আল কুদসকে (জেরুজালেম ) গ্রাস করে নেয়া- আমরা কিছুতেই এটা মেনে নিব না।

তথাকথিত শতাব্দীর সেরা চুক্তির ব্যাপারে আরব ইসলামি রাষ্ট্রসমূহের ভূমিকা নিয়ে সমালোচনা করেছেন মুসলিম বিশ্বের প্রভাবশালী এই নেতা। এরদোগান বলেন, জেরুজালেমকে ইহুদিবাদীদের হাতে তুলে দেয়ার ষড়যন্ত্রকে যেসব আরব দেশ মেনে নিতে বলছে- তারা নিজেদের মানুষের সঙ্গে, নিজের দেশের সঙ্গে এবং মানবতার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে।

কথিত শান্তি পরিকল্পনার নামে ফিলিস্তিনি ভূমিতে ইসরায়েলি অবৈধ বসতিকে বৈধতা দেয়ার বিষয়ে কোনো কথা না বলায় সৌদি আরব ও উপসাগরীয় অঞ্চলের আরব দেশগুলোর সমালোচনা করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

মুসলিমবিশ্বের এ নেতা বলেন, ফিলিস্তিনিদের পাশে আরব দেশগুলো দাঁড়াতে এবং বিতর্কিত ও একপেশে ওই পরিকল্পনার বিষয়ে কথা বলতে ব্যর্থ হয়েছে। মারাত্মক কোনো পরিণতি হলে তারা দায়ী থাকবে বলে জানান এরদোগান.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares